সন্তানের দ্বীনি শিক্ষা

এক কলেজের প্রিন্সিপাল হযরত হাফেজ্জী হুযুুর রহমাতল্লাহি আলাইহির কাছে বাইআত ছিলেন। প্রিন্সিপাল গাহেবর ছেলে এবং ছেলের বউ দু’জনই চাকুরী করতেন। ছেলের বউ লন্ডনে দেড় বছরের একটি স্কলারশীপ পেলে তিনি আমাকে বললেন, ‘আমার পুত্রবধূ মাহরাম সাথে না নিয়ে একাকী লন্ডনে থাকবে, এটা আমি কখনোই মেনে নেব না। তাকে আমি হযরত হাফেজ্জী হুযুুর রহমাতুল্লাহি আলাইহির কাছে নিয়ে গেলাম। হযরত জিজ্ঞেস করলেন, ‘নাতি-নাতনী ক’জন?’ বলা হল, দুই ছেলে এক মেয়ে। হযরত বললেন, ‘সবর করেন। ছেলেকে দ্বীনি শিক্ষা দেন নাই কেন? এখন ভোগেন।’ আমার শোনা হযরতের মুখে এটাই সবচেয়ে কঠিন কথা। হযরত বললেন, ‘নাতি নাতনীদের দ্বীনি শিক্ষা দেন।’ আলহামদুলিল্লাহ পরবর্তী পর্যায়ে সেই ছেলের বউ দ্বীনদার হয়েছে। একই কথা আমি তাকে বলেছিলাম কিন্তু ফল হয় নাই। বড়দের মুখের কথার তাছীর আলাদা।

Facebooktwitterpinterestmailby feather