হাফেজ্জী হুযুুর আর আবরারুল হক হুজুরের নসিহত

হযরত বলেন, হাফেজ্জী হুযুুর রহমাতুল্লাহি আলাইহি বারবার এই আয়াত তিলাওয়াত করতেন,

وَاتَّقُوا يَوْمًا تُرْجَعُونَ فِيهِ إِلَى اللهِ ثُمَّ تُوَفَّى كُلُّ نَفْسٍ

مَّا كَسَبَتْ وَهُمْ لَا يُظْلَمُونَ ২:২৮১

‘ঐ দিনকে ভয় কর যে দিন তোমরা আল্লাহর কাছে প্রত্যাবর্তিত হবে। অতঃপর প্রত্যেকেই তার কর্মফল পুরোপুরি পাবে এবং তাদের প্রতি কোনরূপ অবিচার করা হবে না।’ আখেরাতের অর্জন হচ্ছে, মুহাম্মাদ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম) প্রতিটি কাজ যেভাবে করেছেন, হুবহু সেটা অনুসরণ করা।

হরদুঈ হযরত মাওলানা শাহ আবরারুল হক সাহেব রহমাতুল্লাহি আলাইহি এই আয়াতটি বেশি বেশি পড়তেন,

وَذَكِّرْ فَإِنَّ الذِّكْرَى تَنْفَعُ الْمُؤْمِنِينَ ৫১:৫৫

‘আপনি মনে করিয়ে দিন। মনে করিয়ে দেয়া অবশ্যই ঈমানদারকে উপকার করবে।’ আল্লাহ তা’আলা আমাদের প্রিয় নবী হযরত মুহাম্মাদ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম)-কে বলেন, মনে করিয়ে দিলে বান্দার উপকার হবেই। কি মনে করিয়ে দিবে? হযরত মুহাম্মাদ (সাল্লাল্লাহু আলাইহি ওয়া সাল্লাম)-এর তরীকার কথা মনে করিয়ে দিন। পুরোনো কথাই আবার নতুন করে মনে করিয়ে দিন।’

Facebooktwitterpinterestmailby feather